রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ১২:৫২ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
রাজারহাট উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির মানববন্ধন আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকার পক্ষে একজোট হয়ে কাজ করতে হবে বাণিজ্যমন্ত্রী সাভারে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের ময়লা পরিষ্কার পবিপ্রবি রোভার এন্ড গার্ল-ইন রোভারের ইউনিফর্ম বিতরণ সভা অনুষ্ঠিত নওগাঁর রাণীনগরে একজন শিক্ষক দিয়ে চলছে লক্ষীকোলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় বাঘাইছড়িতে বিশ্ব খাদ্য দিবস ২০২১ উপলক্ষে রেলী ও আলোচনা সভা উদযাপন সোনারায় এর নৌকার মাঝি মজিদ মিরপুরে আওয়ামী লীগের দুই চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ গোয়াইনঘাটে তৃতীয় ধাপে ৬ টি ইউনিয়নে ২৮ নভেম্বর ইউপি নির্বাচন আওয়ামীলীগের বিতর্কিত কমিটি বিলুপ্তি ঘোষণা, আহ্বায়ক কমিটি গঠনের নির্দেশ
সড়ক-মহাসড়কে তীব্র যানজট, ঘরমুখো যাত্রীদের উপচে পড়া ভিড় শেষদিনেও

সড়ক-মহাসড়কে তীব্র যানজট, ঘরমুখো যাত্রীদের উপচে পড়া ভিড় শেষদিনেও

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ

গাজীপুরে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের এলাকায় ৩ কিলোমিটার এলাকা থেমে থেমে যানজট। প্রিয়জনের সাথে ঈদ করতে শেষ মুহূর্তে গাজীপুর ছাড়ছে অনেকেই। পথে পথে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে অনেকেরই। দূরপাল্লার বাস না চললেও প্রাইভেটকার, খোলা ট্রাক, পিকআপ ও ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা আর মোটরসাইকেলে চেপে ভেঙে ভেঙেই বাড়ি যাচ্ছে মানুষ।

যানবাহনের চাহিদা বেশি থাকায় ভাড়াও গুনতে হচ্ছে কয়েক গুণ বেশি। যানবাহন না পেয়ে শত শত যাত্রী সড়কের পাশেই দাঁড়িয়ে আছেন। এদিকে সকালে থেকে অঝোরধারার বৃষ্টি ঈদে ঘরে ফেরা সাধারণ মানুষের ভোগান্তি বাড়িয়েছে। বৃষ্টির বাগড়া থেকে রক্ষা পেতে তাদের ছাতা ও পলিথিন ব্যবহার করতে দেখা যায়।

খোঁজ নিয়ে যানা যায়, মহাসড়কের ট্রাকে অভিনব কায়দায় বহন করা হয়েছে যাত্রী। দৃশ্যটা এমন পুরো ট্রাক ত্রিপল এবং পলিথিন দিয়ে ঢাকা। বাইর থেকে দেখলে যেকেউ মনে করবে ভেতরে রয়েছে পণ্য। কিন্তু আসলে ছিল মানুষ। ট্রাকের সামনের দিক থেকে একজন একজন করে যাত্রী তুলে তাদের নিয়ে ঢোকানো হচ্ছিল ত্রিপলের ভেতরে। এভাবে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে ঘরমুখো যাত্রীদের। যাত্রীভেদে দরকষাকষি করে ভাড়া নেওয়া হয়েছে ৩০০ থেকে ৫০০ টাকা।

এদিকে গাজীপুরের পোশাক কারখানাসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ঈদের ছুটি ঘোষণা করা হলে হাজার হাজার মানুষ পথ ধরে গ্রামের দিকে। যার ফলে মহাসড়কে গাড়ির চাপ বেড়ে যায়। এতে করে চান্দনা চৌরাস্তা থেকে টঙ্গী পর্যন্ত যানজট সৃষ্টি হয়।

গাজীপুরের মাওনা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামাল হোসেন জানান, অতিরিক্ত চাপ সামলাতে ঈদে ঘরে ফেরা মানুষের যাত্রা নির্বিঘ্ন করতে হাইওয়ে ২০ জন সদস্য রাতভর কাজ করছেন। এখনো তারা কাজ করছেন। মহাসড়কের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে কোনো গাড়ি দাঁড়াতে দেওয়া হচ্ছে না। তবে যানবাহন সংকট থাকায় যাত্রীরা বিভিন্ন পয়েন্টে গাড়ির জন্য অপেক্ষা করছেন।

গাজীপুরের সালনা (কোনাবাড়ী) হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর গোলাম ফারুক জানান, ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের চন্দ্রা এলাকায় ২ থেকে ৩ কিলোমিটার এলাকায় যানবাহন চলছে ধীরগতিতে। যাতে যানজটের সৃষ্টি না হয় সেজন্য পুলিশ কাজ করছে।

 

মোঃ রাসেল মিজি/রা.মি





পুরাতন নিউজ খুঁজুন

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
©2019-2021 Daily Vorer Kantho. All rights reserved.